এখানে জেতার জন্য এসেছি, শিখতে আসিনি: মাঠে নামার আগে সোহান

খেলা breaking subled

নিউজ ডেষ্ক- এবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু হবে আজ শনিবার ৩০ জুলাই থেকে। হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে নামার আগের দিন দলের নতুন অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান জানিয়েছেন, তারা এখানে শিখতে আসেননি। জেতার জন্যই এসেছেন।আজ বিকেল ৫টায় প্রথম টি-টোয়েন্টিতে জিম্বাবুয়ের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। খেলা সরাসরি দেখা যাবে টি-স্পোর্টসে।

এই ম্যাচের আগে আগে গতকাল শুক্রবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন অধিনায়ক সোহান। সেখানেই তিনি জয়ের জন্য আসার কথা ব্যক্ত করেন জোরালোভাবে। সোহান বলেন, ‘যদি বলেন হ্যাঁ, আমরা তরুণ একটা দল। কিন্তু আমার কাছে মনে হয় যে আমরা এখানে শিখতে আসিনি। অবশ্যই চ্যালেঞ্জ থাকবে তবে আমরা জেতার জন্যই এখানে এসেছি।’

জিম্বাবুয়ে সিরিজে বাংলাদেশ এবার অভিজ্ঞদের বাদ দিয়ে তরুণদের পাঠিয়েছে। মাহমুদউল্লাহর রিয়াদের পরিবর্তে নেতৃত্ব দেওয়া হয় সোহানকে। মুশফিকুর রহিমকে দেওয়া হয় বিশ্রাম। এ ছাড়া সাকিব আল হাসান আগে থেকেই ছুটি নিয়েছেন। তবে মুনিম শাহরিয়ার, পারভেজ ইমন কিংবা হাসান মাহমুদরা ছাড়া দলের অধিকাংশ সদস্য খেলেছেন বেশ কয়েকবছর ধরে। সোহান এ জন্য এই দলকে তরুণ্যে ভরা বললেও অনভিজ্ঞ বলতে নারাজ।

তিনি বলেন, ‘অনভিজ্ঞ দল বলতে পারেন না। বেশিরভাগ ছেলেই ৬-৭ বছর ধরে খেলছে, ফলে আমরা যথেষ্ট অভিজ্ঞ। আমরা ৬-৭ বছর ধরেই খেলছি। অভিজ্ঞরা আছে। দল নিয়ে খুশি। চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হব, তবে সেটির জন্য প্রস্তুত আছি।’ আগ্রাসী হিসেবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নেতা হিসেবে সোহানকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পছন্দ। এ জন্য কয়েকজনকে ছাপিয়ে নেতা হিসেবে সোহান টিকে গেছেন। সোহানও জানিয়েছেন তারা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত। সেরাটা দিয়েই স্বাগতিকদের বিপক্ষে জয় তুলে নিতে চান।

তিনি বলেন, ‘প্রথমত আমি কোনো অজুহাত দিতে চাই না। আমার কাছে মনে হয় যে আমরা যেহেতু এখানে তিনটি ম্যাচের জন্য এসেছি অবশ্যই চ্যালেঞ্জ থাকবে। যেটা বললাম চ্যালেঞ্জ নেয়ার জন্য সবাই খুব আগ্রহী। আমার কাছে মনে হয় যে ভালো একটা সিরিজ হবে। তাদের কন্ডিশনে তারা অবশ্যই ভালো দল। কিন্তু আমি আমার দল নিয়ে খুশি। ভালো একটা সিরিজ হবে এবং অবশ্যই লক্ষ্য থাকবে আমরা যেন শীর্ষে থেকে শেষ করতে পারি।’

এদিকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ বেশ এগিয়ে। এখন পর্যন্ত ১৬ বার মুখোমুখি হয়েছে দুই দল। বাংলাদেশ জিতেছে ১১ বার, আর বাকি ম্যাচে জিম্বাবুয়ে। আর তাদের মাটিতে ৫ েবারের দেখায় অবশ্য হারতে হয়েছে দুইবার। তবে সিনিয়রদের বাদ দিয়ে তরুণ দল পাঠানোয় এবারের সিরিজের গুরুত্ব অনেক। নজর থাকবে সবারই।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *